ভিডিও

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

জনগণ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও আমার প্রতি আস্থা রেখেছেন, তাদের বিশ্বাস অটুট রাখব; তৃতীয়বারের মত মন্ত্রী হয়ে আসানসোলে পা রেখেই বললেন মলয় ঘটক👇👇

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

*হিন্দ সংবাদ, আসানসোল, সৌরদীপ্ত সেনগুপ্ত* :
তৃতীয়বারের মতো মন্ত্রী হওয়ার পরে মলয় ঘটক আসানসোলে পৌঁছবার পর আসানসোলের জায়গায় জায়গায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠান পর্ব চলতে থাকে । কালীপাহারী মোড় থেকে বিএনআর মোড়, জায়গা-জায়গায় নেতাকর্মীরা তাঁকে স্বাগত জানান। তরুণ নেতা চঙ্কি সিং এবং তরুণ ব্যবসায়ী আশীষ প্যাটেলের নেতৃত্বে মুরগাশোলে সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

গতকাল রাজভবনে মন্ত্রিপরিষদের মন্ত্রীদের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। মন্ত্রী মলয় ঘটকের আগামীকাল আসানসোলে আসার কথা ছিল কিন্তু কোনও কারণবশত: তিনি গতকাল আসতে পারেননি। গতকাল, তৃণমূল সমর্থক এবং তাদের অনুরাগীরা সম্বর্ধনা জানাবার আগাম প্রস্তুতি নিলেও, যখন জানতে পারেন যে তিনি আসছেন না, তখনও কেউ কেউ হতাশা বোধ করেন। মঙ্গলবার যখন তিনি কলকাতা থেকে আসানসোলের উদ্দেশ্যে রওনা হন, মানুষ তাঁর গাড়ি বিভিন্ন জায়গায় থামিয়ে তাকে ফুলের মালা এবং ফুলের তোড়া উপহার দিয়ে সম্মানিত করেন। শক্তিগড়, বর্ধমান, দুর্গাপুর, অন্ডাল, কালীপাহাড়ী, দুর্গা মন্দির, মুরগাশোল, জিটি রোড মহাবীর স্থানের কাছে তাঁর ভক্ত এবং তৃণমূল সমর্থকরা সম্বর্ধনা জানান।

*বাজার কমিটি ও যুব টিএমসির সম্বর্ধনা*

মঙ্গলবার জিটি রোড সুভাষ সিনেমায় ৫ নম্বর পার্কিংয়ের কাছে তৃণমূল যুব কংগ্রেস ও আসানসোল বাজার কমিটির পক্ষে কলকাতা থেকে মন্ত্রী হয়ে আসানসোলে ফিরে আসার পর মঙ্গলবার তৃণমূল যুব কংগ্রেস ও আসানসোল বাজার কমিটি তাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানায়। যুব তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সাধারণ সম্পাদক পিন্টু গুপ্তা, মন্ত্রী মলয় ঘটককে ফুলের তোড়া উপহার দিয়ে এবং উত্তরীয় পরিয়ে সম্মানিত করেন। মলয় ঘটক সবাইকে ধন্যবাদ জানান। অনুষ্ঠানে অমিত ছাবরা, আকাশ সিং, দীনেশ কুমার, দীপক কুমার, মনোজ শর্মা, মোহাম্মদ নাদিম, মোহাম্মদ জুবেরা আলম সহ কয়েকশ সমর্থক উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে আপার চেলিডাঙায়, তাঁর ভাই অভিজিৎ ঘটক সমর্থকদের সাথে ঢোল বাজিয়ে এবং ফটকা ফাটিয়ে স্বাগত জানান। প্রয়াত চেলিডাঙ্গায় মন্ত্রী স্বর্গীয় দেবশীষ ঘটকের মূর্তিতে মাল্যদান করেন। এদিকে বিএনআর তৃণমূল পার্টি অফিসে মলয় ঘটককে স্বাগত জানানোর জন্য আগাম প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছিল। মলয় ঘটকের গাড়ির কনভয় পৌঁছনা মাত্র আতশবাজি ফোটানো হয়, মিষ্টি বিতরণ করা হয়, ড্রাম বাজানো হয়,সবুজ আবীর খেলা হয়। প্রিয়জনরা মলয় ঘটককে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান ।

*জনগণ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও আমার প্রতি বিশ্বাস রেখেছেন, তাদের বিশ্বাসকে অটুট রাখব* :

এই উপলক্ষে মলয় ঘটক বলেন যে, ” এই জয় মানুষের জয়, এই জয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জয়, এই জয় তাদের দ্বারা করা কাজের জয়, জনতা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি আস্থা রেখে আমাকে জিতিয়ে নিয়ে এসেছেন। তার বিশ্বাসকে যেন ভেঙে না যায় সে জন্য সর্বদাই তিনি রয়েছেন এবং সর্বদা জনতার হয়ে কাজ করবেন। মন্ত্রিপরিষদে মন্ত্রী হওয়ার পরে তিনি বলেন যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমাকে একটি বিশাল দায়িত্ব অর্পণ করেছেন, যেটা পাথেয় করে সামনে এগিয়ে চলতে হবে। অনুষ্ঠানে ভানু বোস, মনোজ রজক, পিন্টু কর্মকার, মুকেশ ঝা সহ কয়েকশো তৃণমূল সমর্থক উপস্থিত ছিলেন। এরপরে বিএনআর মোড়ে মন্ত্রী মলয় ঘটকের স্ত্রী সুদেষ্ণা ঘটক মলয় ঘটকের সম্মানিত করেন। এখানে শঙ্খ বাজিয়ে মহিলারা স্বাগত জানান। ব্লক সভাপতি গুরুদাস চ্যাটার্জী, শিক্ষক নেতা মুকেশ ঝা, ভানু বোস, পিন্টু কর্মকার, সন্তু কর্মকার, সৌরভ টপ্পো, সৈয়দ রশিদ, লাডলা, শম্পা দাঁ, জয় চক্রবর্তী, আকাশ মুখার্জি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ঘান্টি গলী মোড়ের নিকটবর্তী ৪৪ নম্বর ওয়ার্ডের নাগরিকবৃন্দ ও স্বস্তিক সেবা সমিতি আসানসোলের পক্ষ থেকে সম্বর্ধনা দেওয়া হয়। সেখানে গোবিন্দ শর্মা, মুকেশ শর্মা, আনন্দ পরিক, রওশন শর্মা, বিমল জালান, রিঙ্কু সা, রিপ্পি ভার্মা, মধুমিতা দাস, মহ: পারভেজ, সন্তোষ কেজরিওয়াল, জিতু সিং, সুদীপ আগরওয়াল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। বস্তিন বাজার, গির্জা মোড়েও নেতাকর্মীদের পক্ষ থেকেও স্বাগত জানানো হয় মন্ত্রী মলয় ঘটককে।

TAGS

সম্পর্কিত খবর