ভিডিও

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

পথশ্রী রাস্তাশ্রী প্রকল্পের মধ্য দিয়ে দেন্দুয়ায় দুটি গুরত্বপূর্ণ রাস্তার শিল্যানাস

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

:-

কৌশিক মুখার্জি নির্ভীক বাংলা সালানপুর:-

পথশ্রী রাস্তাশ্রী প্রকল্পের মধ্য দিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারাবনি বিধান সভায় ভার্চুয়াল মাধ্যমে মোট ষাটটি রাস্তার শিল্যানাস করেন।তারই মধ্যে বারাবনি বিধানসভার সালানপুর ব্লকের দেন্দুয়া পঞ্চায়েতের অন্তর্গত রাজ্য সরকারের পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন বিভাগ থেকে কল্যানেশ্বরী হোটেল থেকে হদলা গ্রাম পর্যন্ত প্রায় ১.৭৬০ কিলোমিটার রাস্তাটি ৪৮ লক্ষ ৫হাজার ৩৩টাকা খরচ করে কাজের শিল্যানাস করা হল। তাছাড়া দিয়া হোটেল থেকে সুলেমান পার্ক পর্যন্ত ০.৭৭ কিলোমিটার রাস্তাটি ১৭লক্ষ ১১হাজার ৪৭৪টাকা খরচ করে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার শিল্যানাস করা হল।দুটি রাস্তার নারকেল ফাটিয়ে শিল্যানাস করেন পঞ্চায়েত প্রধান শিমুলা মারান্ডি,উপ প্রধান রঞ্জন দত্ত,দেন্দুয়া আঞ্চলিক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা ব্লকের আইএনটিটিইউসির সভাপতি মনোজ তেওয়ারী।এই দুটি রাস্তার নির্মাণের দাবি বহু দিন ধরে এলাকার মানুষ করে আসছিলেন।অবশেষে রাস্তা তৈরি হচ্ছে তা জেনেই খুশি প্রকাশ করেন এলাকার মানুষ জন।তারা জানান পিকনিকের মরশুমে দিয়া হোটেল থেকে সুলেমান পার্ক পর্যন্ত রাস্তাটি কাঁচা থাকার জন্য প্রচুর সমস্যায় পড়তে হত পর্যটক থেকে শুরু করে এলাকার মানুষজনকে।তাছাড়া থার্ড ডাইকে ছট পূজা করতে আসা ছট ব্রতীদেরও প্রচুর সমস্যা হত।এবং হদলা গ্রাম থেকে কল্যানেশ্বরী যাবার রাস্তাটি বহুদিন ধরে বেহাল অবস্থায় ছিল,মানুষের আসা যাওয়ার সমস্যা হচ্ছিল।এদিন দেন্দুয়া গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান শিমুলা মারান্ডি জানান এই দুটি রাস্তার দাবি সাধারণ মানুষ অনেক দিন ধরে করে আসছিলো।এই রাস্তার কথা আমাদের বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়কে জানানোর পর তিনি উদ্যোগনেন এবং আজ তার শিল্যানাস করা হয়।
তাছাড়া এদিন উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল নেতা মবিন খান,রামচন্দ্র সাউ, সন্তোষ গৌড়া,পঞ্চায়েত সদস্য রেখা মল্লিক সহ সমস্ত পঞ্চায়েত সদস্যগণ।

TAGS

সম্পর্কিত খবর