ভিডিও

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

ইস্টার্ন রেলওয়ে স্কুল বন্ধের সিদ্ধান্তর অভিযোগ নিয়ে আসানসোল পৌরনিগমের মেয়রের দ্বারস্থ অভিভাবক ও পড়ুয়ারা

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

লিলটু বাউড়ি ও রামকৃষ্ণ চ্যাটার্জী নির্ভীক বাংলা,আসানসোল:-

ইস্টার্ন রেলওয়ে স্কুল বন্ধের সিদ্ধান্তের অভিযোগ নিয়ে আসানসোল পৌরনিগমের মেয়রের দ্বারস্থ অভিভাবক ও পড়ুয়ারা।বৃহস্পতিবার অভিভাবকরা ও পড়ুয়ারা মেয়র বিধান উপাধ্যায়ের দ্বারস্থ হয়েছে।এই প্রসঙ্গে অভিভাবকরা মেয়র বিধান উপাধ্যায়কে বলেন ইস্টার্ন রেলওয়ে স্কুলকে বন্ধ করে দেওয়া হবে।এরফলে পড়ুয়াদের ভবিষ্যত নষ্ট হয়ে যাবে।তাই এই স্কুল যাতে বন্ধ না হয় তারজন্য মেয়র বিধান উপাধ্যায়কে আবেদন জানানো হয়েছে।যদিও এই প্রসঙ্গে রেলের আধিকারিকদের চিঠি দেবেন বলে জানিয়েছেন মেয়র বিধান উপাধ্যায়।এই প্রসঙ্গে এক অভিভাবক বলেন আমাদের ছেলেরা এই রেল স্কুলে পড়াশোনা করত এতে আমাদের বেশি খরচা লাগতো না আমরা যেটুকু রোজকার করতাম তার মধ্যে আমাদের ছেলেমেয়েরা খুব সুন্দর ভাবে পড়াশোনার খরচ আমরা যোগাতে পারতাম কিন্তু এই মুহূর্তে যদি স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হয় তাহলে আমাদের আর্থিক টানাপোড়েনে পরবো।আমরা চাইছি রেলওয়ে স্কুলের খরচায় আমাদের বাচ্চাদের পড়াশোনার সেই রকম সুযোগ দিয়ে অন্য কোথাও ছেলেদের ভর্তি করে দেওয়া হোক। নচেৎ আমরা এই স্কুলে ধরনায় বসে আছি, বসে থাকবো আমরা এই স্কুল থেকে ছেলেদের কে ছাড়িয়ে নিয়ে যাব না।

মৃত্যুঞ্জয় চ্যাটার্জী নামে এক অভিবাবক জানান যে আমার ছেলে ক্লাস ফাইভে পড়ে, আমরা সমস্ত গার্জেনরা চাইছি যে আমাদের ছেলেমেয়েরা স্কুলে পড়াশোনা করবে এবং এই স্কুল থেকে পাশ করে বেরোবে তাতে আমাদেরকে যা করণীয় তাই আমরা করতে রাজি আছি।

এবং এই প্রসঙ্গে আসানসোল পৌরনিগমের মেয়র বিধান উপাধ্যায় বলেন অফিসে থাকাকালীন ই রেল স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীর অভিভাবকেরা এসেছিলেন। ওনারা আমাকে জানিয়ে গেলেন যে রেল স্কুল বন্ধ করে দিচ্ছে। খবরটা পেয়ে খারাপ লাগলো যে ছেলেরা যাবে কোথায় আর সেই ব্যাপার নিয়ে আমরা কথা বলবো রেল আধিকারিক এর সঙ্গে ।এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে জানাবো এবং আমাদের এমপি শত্রুঘ্ন সিনহা কেও জানাবো যে দিল্লিতে এই ব্যাপার নিয়ে কথা বলা হোক ।যাতে এই রেল স্কুল যাতে উঠিয়ে না দেয়া হয়।

TAGS

সম্পর্কিত খবর