ভিডিও

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

আসানসোল – দুর্গাপুর পুলিশের ট্রাফিক সচেতনতায় আগামী দুমাস ধরে প্রচার চালানোর পরিকল্পনা

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

আসানসোল, সৌরদীপ্ত সেনগুপ্ত :ট্রাফিক সচেতনতার জন্য আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটের উদ্যোগে নেওয়া হলো অভিনব পরিকল্পনা । আসানসোল শিল্পাঞ্চলে ট্রাফিক সচেতনতা নিয়ে আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশের এই পরিকল্পনা শুরু হলো বুধবার । এই পরিকল্পনায় বিশেষ করে টু হুইলার চালানোর সময় হেলমেট ব্যবহার করা উচিত, এটা মুলতঃ সচেতনতার প্রচারে গুরুত্ব দেওয়া হবে। তারজন্য পুলিশের উদ্যোগে বিশেষ ছাড়ে হেলমেট কেনার সুবিধা পাবেন আসানসোল শিল্পাঞ্চলের মানুষ। বুধবার আসানসোল-দুর্গাপুর পুলিশ ট্রাফিক সচেতনতামূলক একটি রেলির আয়োজন করে।
আসানসোল দূর্গাপুরের পুলিশ কমিশনার এন সুধীর কুমার নীলকান্তমের নেতৃত্বে একটি ট্রাফিক সচেতনতা র‌্যালির আয়োজন করা হয় আসানসোলের বার্ণপুরের চিত্রা সিনেমা মোড় থেকে । সেই রেলিতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিম বর্ধমানের জেলাশাসক এস অরুণ প্রসাদ, এডিএম ড: অভিজিৎ শেভালে, আসানসোল পুরনিগমের পুর প্রশাসক অমরনাথ চট্টোপাধ্যায়, ডিসিপি( হেডকোয়ার্টার) অংশুমান সাহা, ডিসিপি(ট্রাফিক) আনন্দ রায়, ডিসিপি (সেন্ট্রাল) ড: কুলদীপ এসএস, ডিসিপি (ওয়েস্ট) অভিষেক মোদী সহ পুলিশ কমিশনারেটের পুলিশ আধিকারিক ও কর্মীরা।
আগামী দু মাস অর্থাৎ ২০২২ সালের ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত পুলিশের এই সচেতনতামূলক অভিযান চলবে
বলে পুলিশ কমিশনার জানিয়েছেন। এই দুমাস সময়ের মধ্যে বিভিন্ন সচেতনতামূলক কর্মসূচির আয়োজন করা হবে আসানসোল দূর্গাপুর পুলিশ কমিশনার এলাকায় । এই প্রচার চলাকালীন যে কাউকে হেলমেট ছাড়া গাড়ি চালাতে দেখা যাবে তাদের কাছ থেকে জরিমানা আদায়ের পরিবর্তে পুলিশ তাদের গাড়ির কাগজপত্র এনে হেলমেট কিনতে উৎসাহিত করা হবে। যাতে ভবিষ্যতে তারা আর হেলমেট ছাড়া গাড়ি না চালান। যাদের গাড়ি ধরা হবে তারা হেলমেট কিনে নিয়ে এলে তবেই তাদের গাড়ি ছেড়ে দেওয়া হবে।
এদিকে পুলিশের পক্ষ থেকেও বেশ কিছু দোকানের সঙ্গেও আলোচনার মাধ্যমে কথাবার্তা চালাচ্ছে যাতে হেলমেট কিনলে ছাড় দেওয়া যায়। সেইসব দোকানিরাও ট্রাফিক সচেতনতার জন্য সেই ছাড় দিতে রাজি হয়েছেন।
এদিন আসানসোল দূর্গাপুর পুলিশের উদ্যোগে আসানসোলে ভগৎ সিং মোড়ে একটি স্টল করা হয়েছে। যেখানে হেলমেট কিনলে ৩০ শতাংশ ছাড় দেওয়া হবে।

TAGS

সম্পর্কিত খবর