Skip to content

জেলার মহিলাদের স্বনির্ভর হতে শেখাচ্ছেন সোহিলা গোস্বামী

Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on email

জয়দীপ মৈত্র,দক্ষিণ দিনাজপুরঃ পুরানো দিনে ফিরে দেখলে দেখা যাবে বাড়ির মহিলারা শীতের সোয়েটার তৈরির জন্য উল কাটা পাশাপাশি নানান ঘর সাজানোর উপকরণ তৈরি , কাঁথা সেলাই এর মতো নানান কাজ করতেন । মহিলাদের এই গৃহস্থালি কাজে উপকার পেয়েছেন বাড়ির রোজগার কারী পুরুষরা আর্থিক সহযোগিতা পেয়েছেন এই মহিলাদের কাছ থেকে। কিন্তু বর্তমানে সময় বদলেছে কালের অমোঘ নিয়মে অনেক কিছুই বিলীন হয়ে গেছে । বদলেছে বিভিন্ন কাজের ধরন ও রীতিনীতি । গৃহস্থালির কাজকর্ম সেরে বাড়ির মহিলারা স্বনির্ভর হওয়ার লক্ষ্যে বিভিন্ন ঘর সাজানোর শৌখিনদ্রব্য পোড়ামাটির অলংকার সহ বিভিন্ন হাল ফিল ফ্যাশনের পরিধান সামগ্রী তৈরি করে বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার হাতধরে সেই সব সামগ্রী বিক্রি করে পরিবারের উন্নতির কাজে একধাপ এগিয়ে থাকছেন । মহিলারা স্বনির্ভর হওয়ার লক্ষ্যে গৃহস্থালির রোজকার কাজকর্ম সেরে এইসব বিভিন্ন টুকিটাকি কাজ করে রোজগারের রাস্তা বের করেছেন । দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বুনিয়াদপুর পৌরসভার অন্তর্গত হাটপুকুর এলাকার এমনই এক গৃহবধূ সোহিলা গোস্বামী দীর্ঘদিন ধরে এই পোড়া মাটির ও হাল ফ্যাশনের বিভিন্ন জিনিস তৈরির কাজে লিপ্ত আছেন । তিনি নিজের সংসারের প্রতিদিনের কাজ করার পর অবসর সময়ে এইসব হাতের কাজ করে কিছুটা হলেও অর্থ উপার্জন করতে সক্ষম হয়েছেন । বর্তমানে জিনিসপত্রের দাম আকাশছোঁয়া তাই নিজেদের সংসারের উন্নতির জন্য প্রতিটি মহিলা নিজেকে স্বাবলম্বী করার লক্ষে এইসব হাতের কাজ করে নিজের সংসারের উন্নতি সাধনে এই ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিৎ । ।