ভিডিও

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

পিতা ও পুত্রের মৃত্যুর পরে মৃতর পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দিলেন বারাবনি বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

সালানপুর:-কৌশিক মুখার্জী:ডিভিসি লেফট ব্যাংকে এলাকায় এক দিনে মৃত্যু হলো পিতা-পুত্রের এই খবর পাওয়ার পরে অসহায় পরিবারের পাশে এসে দাঁড়ালেন বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়।
সোমবার,লেফট ব্যাংকের নিবাসী ধীরাজ মন্ডলের পুত্র ক্রিস মন্ডল তার পরিবারের সঙ্গে মাইথনের বরাকর নদী অমর ঝর্ণাতে স্নান করতে গিয়েছিল,সেই সময় পুত্র ক্রিস্ট মন্ডল জলে ডুবে যায় ও তার মৃত্যু হয়।সেই খবর ধীরজ মণ্ডল জানতে পেরে তিনি ভেঙ্গে পড়েন এবং তিনিও মারা যান। এই খবর পেয়ে বুধবার,বিধায়ক বিধান উপাধ্যায় লেফট ব্যাংক কলোনির বাসিন্দা মৃত ধীরাজ মণ্ডল ও পুত্র ক্রিস মন্ডলের বাড়িতে এসেন এবং মৃত ধীরজ মণ্ডলের স্ত্রী সম্পা মন্ডল ও কন্যা রুথ মণ্ডল এবিং জ্যোতি মন্ডলের সাথে দেখা করেন।এবং তাদের লেখা পড়ার দায়িত্ব থেকে শুরু করে,তাদের মাসিক কিছু আর্থিক সহায়তা সহ তাদের বাড়ির মেরা মত করার দায়িত্বনেন।
এই প্রসঙ্গে বারাবনির বিধায়ক বিধান উপাধ্যায় বলেন একই পরি বারের পিতা এবং পুত্রের আক স্মিক মৃত্যুর পরে পুরো পরিবারটি অসহায় হয়ে পড়েছে।
তৃণমূল কংগ্রেস সর্বদায় অসহায় মানুষের পাশে থাকে।তাদের বাড়ি টি দেখলাম মাথার ছাদটি খারাপ হয়ে পড়ে রয়েছে,তাই প্রথমেই বাড়িটি মেরামত করা হবে।মৃতের স্ত্রীকে প্রতি মাসে আর্থিক সহায়তা করা হবে,ও তার দুই কন্যার পড়া শুনার জন্য যাবতীয় সহযোগিতা করা হবে তাছাড়া খুব শীঘ্রই স্ত্রী সম্পা মন্ডলকে একটা যেকোনো ভালো কাজের ব্যাবস্থা করা হবে।
যেহেতু এই পরিবারের কেউ এখন উপার্জন করার মত নেই।তাই আমি সব সময় এই পরিবারের সাথে দাঁড়াবার চেষ্টা করব।
তাছাড়া এদিন উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ কর্মদক্ষ মহম্মদ আরমান,সালানপুর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক ভোলা সিং সহ তৃণমূল নেতা আশুতোষ তিওয়ারি, নরেন্দ্র খোসলা,বিজয় সিংহ সহ সমস্ত কর্মীবৃন্দ।

TAGS

সম্পর্কিত খবর