ভিডিও

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

তৃণমূল কংগ্রেসের একাধিক দুর্নীতির প্রতিবাদে আন্দোলন করবে জানান অগ্নিমিত্রা

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

লিলটু বাউরি, আসানসোল

তৃণমূল কংগ্রেসের একাধিক দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরব হলেন পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোল দক্ষিণ বিধানসভার বিধায়িকা অগ্নিমিত্র পাল, ক্ষোভের সাথে তিনি জানান জেলায় একাধিক দুর্নীতির প্রতিবাদে বিজেপি আন্দোলন গড়ে তুলতে বিভিন্ন জায়গায় প্রতিবাদ বিক্ষোভ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।অগ্নিমিত্রা পল ক্ষোভের সাথে জানান জেলার ইএসআই হাসপাতালে কর্মী নিয়োগ নিয়ে দুর্নীতি হয়েছে, দমকল বিভাগে পয়সা দিয়ে অপ্রশিক্ষিত কর্মীদের নিয়োগ করা হয়েছে পয়সার বিনিময়ে।

তিনি জানান দমকল বিভাগে ১১০ জন নিয়োগের কথা থাকলেও মাত্র ৫৩ জনকে নিয়োগ করা হয়েছে এবং গুরুত্বপূর্ণ দপ্তরে অপ্রশিক্ষিত কর্মীদের নিয়োগ করা হয়েছে পয়সার বিনিময়ে। কাজি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে মোনালিসা দাস বিশ্ববিদ্যালয়ের সামগ্রিক ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতেন, তিনি ঠিক করতেন পিএইচডি থেকে স্কলারশিপ ও কলেজে ভর্তি কাদের করা হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলার কাঠের পুতুলের মতো কাজ করতেন।

শিক্ষাক্ষেত্রে দুর্নীতির ব্যাপারে তৃণমূল কংগ্রেসের শিক্ষক সংগঠনের নেতা অশোক রুদ্রের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ করেন, তিনি জানান অশোক রুদ্র একাধিক শিক্ষককে সংগঠনের সদস্য না হবার কারণে সুদূর গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বদলি করেছেন পাশাপাশি তৃণমূল কংগ্রেসের সমর্থিত একজন গর্ভবতী শিক্ষিকা জেলায় বদলির জন্য অশোক রুদ্রকে পয়সা দিলেও বদলি হয় নি তিনি জানান দমকল, ইএসআই হাসপাতালে অবৈধভাবে নিয়োগ ও অশোক রুদ্রর বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগের তথ্য প্রমাণ তিনি যথাসময়ে পেশ করবেন।

রাজ্যের মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার ও সড়ক যোজনার ফলকে হঠাৎ করে নিজের নাম মুছে দিয়েছেন তিনি বুঝেগেছেন জনগণ বুঝে গেছেন তার মিথ্যা প্রতিশ্রুতির কথা, রেশন ব্যাবস্থাতে কেন্দ্রীয় সরকারের অনুদান থাকলেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের নামে চালাতেন। একশো দিনের পয়সা কেন্দ্র পাঠানো বন্ধ করতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের টনক নড়ে তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের সমস্ত যোজনার ফলকে হঠাৎ করে নিজের নাম মুছে দিলেন।

সিবিআই সম্বন্ধে তিনি জানান তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা ক্রমাগত সিবিআইকে কেন্দ্রীয় সরকারের এজেন্সি বলে দোষ দিয়ে থাকেন অথচ অনুব্রত মণ্ডলকে নয় বার সমন পাঠাবার পর একবার হাজিরা দিয়েছেন, রাজ্যের মন্ত্রী মলয় ঘটককে পাঁচবার সমন পাঠালেও একবার হাজিরা দিয়েছেন এইসব ব্যাপার সিবিআই বুঝবে এতে বিজেপির কোন যোগসাজশ নেই। এইসব দুর্নীতির প্রতিবাদে আগামী দিনে আন্দোলন গড়ে তুলবে বিভিন্ন বিক্ষোভ কর্মসূচির মাধ্যমে বলে জানান অগ্নিমিত্রা পল।

শিক্ষকদের বদলী ও একজন শিক্ষিকার বদলি নিয়ে একটা অডিও ক্লিপিং নিয়ে অগ্নিমিত্রা পল শিক্ষক সংগঠনের নেতা ও কাউন্সিলার অশোক রুদ্রর নামে যে দুর্নীতির অভিযোগ করেছেন তার উত্তরে অশোক রুদ্র জানান অগ্নিমিত্রা পল নিজের দলের কাছে ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার জন্য মাঝে মাঝে আসানসোলে উদয় হন একগুচ্ছ অভিযোগের ডালা নিয়ে, তার কাছে যেসব তথ্য প্রমাণ আছে সেসব জনসমক্ষে প্রকাশ করুন। শিক্ষক সংগঠনের নেতা হবার আগে ছাত্র সংগঠনের নেতা হিসাবে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সাথে বহু ছবি আছে সেগুলো দেখিয়ে আর অডিও ক্লিপিং এর ভয় দেখিয়ে রাজনৈতিক বাজার গরম করতে চাইছেন এইসবকে গুরুত্ব দিতে নারাজ অশোক রুদ্র।

TAGS

সম্পর্কিত খবর

সর্বশেষ খবর